রবিবার, জুন ১৬, ২০২৪
spot_img
Homeমুল পাতাআইপিএল মাঠে গড়াচ্ছে ২৬ মার্চ

আইপিএল মাঠে গড়াচ্ছে ২৬ মার্চ

প্রাইম ডেস্ক »

নতুন করে দুটি দল যুক্ত হওয়ায় এখন থেকে দশ দল নিয়ে আয়োজিত হবে ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগ (আইপিএল)। এমতাবস্থায় প্রতিযোগিতার ফরম্যাটে বদল এনেছে আইপিএল গভর্নিং কাউন্সিল। দলগুলোকে দুটি গ্রুপে ভাগ করে মাঠে গড়াবে এবারের আসর।
জানা গেছে, এবার সব দল গ্রুপ পর্বে ১৪টি করে ম্যাচ খেলবে। এ ব্যবস্থায় নির্দিষ্ট একটি দলের প্রতিপক্ষ হবে অনেকটা এমন- পাঁচটি দলের বিপক্ষে দু’টি এবং চারটি দলের বিপক্ষে একটি করে ম্যাচ।

নতুন ফরম্যাটে ১০ দলকে ‘এ’ ও ‘বি’ নামে দুটি গ্রুপে ভাগ করে দেওয়া হয়েছে। সেখানে টুর্নামেন্টে শিরোপা জয়ের সংখ্যা কিংবা ফাইনাল খেলার সংখ্যার ভিত্তিতে করা হয়েছে পর্যায়ক্রম।

সে অনুযায়ী সর্বোচ্চ পাঁচটি শিরোপাজয়ী মুম্বাই ইন্ডিয়ানস হচ্ছে ‘এ’ গ্রুপের প্রথম দল। দ্বিতীয় সর্বোচ্চ চারটি শিরোপা জেতা চেন্নাই সুপার কিংস আছে দুই নম্বরে। তারা ‘বি’ গ্রুপের শীর্ষে স্থান পেয়েছে।

একই নিয়মে ‘এ’ গ্রুপের বাকি চার দল যথাক্রমে কলকাতা নাইট রাইডার্স, রাজস্থান রয়্যালস, দিল্লি ক্যাপিটালস ও লক্ষ্ণৌ সুপার জায়ান্টস। ‘বি’ গ্রুপে দ্বিতীয় দল সানরাইজার্স হায়দরাবাদ, এরপর রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোর, পাঞ্জাব কিংস ও গুজরাট টাইটান্স।

উদাহরণ হিসেবে বলা যায়, কলকাতা দু’টি করে ম্যাচ খেলবে তার গ্রুপে থাকা মুম্বাই, দিল্লি, রাজস্থান এবং লক্ষ্ণৌয়ের বিরুদ্ধে। অন্য গ্রুপের হায়দরাবাদের বিরুদ্ধেও দু’টি ম্যাচ খেলবে কেকেআর। বাকি চার দলের সঙ্গে একটি করে ম্যাচ খেলবে কলকাতা।

কলকাতা নাইট রাইডার্সের গ্রুপে রয়েছে মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স, দিল্লি ক্যাপিটালস, রাজস্থান রয়্যালস এবং লক্ষ্ণৌ সুপারজায়ান্টস। অন্য গ্রুপে রয়েছে চেন্নাই সুপার কিংস, গুজরাত টাইটান্স, সানরাইজার্স হায়দরাবাদ, পাঞ্জাব কিংস এবং রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোর।

২০১১ সালে ছিল দশ দলের আইপিএল। সেবার এই ভাবে খেলা হয়েছিল। ২৬ মার্চ থেকে শুরু হবে এবারের আইপিএল। ফাইনাল হবে ২৯ মে। ৭০টি লিগ ম্যাচ খেলা হবে। মহারাষ্ট্রের চারটি মাঠে সেই সব ম্যাচ হবে।

প্রতিটি দল ওয়াংখেড়ে এবং ডিওয়াই প্যাটেল স্টেডিয়ামে চারটি করে ম্যাচ খেলবে, ব্রাবোর্ন স্টেডিয়াম এবং পুনের এমসিএ স্টেডিয়ামে খেলবে তিনটি করে ম্যাচ।

বিসিসিআই-এর তরফে বলা হয়েছে, ‘আইপিএল-এর পঞ্চদশ সংস্করণ হবে জৈব সুরক্ষা বলয়ের মধ্যে। বিমান যাত্রা না থাকায় এবার করোনা ছড়িয়ে পড়ার ভয় কম। এর ফলে লিগ পর্বে ক্রিকেটারদের আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা কম বলেই মনে করা হচ্ছে

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

- Advertisment -spot_img

পাঠক প্রিয়